আইসিটি খাতে বাংলাদেশের মানবসম্পদকে অপার সম্ভাবনাময় হিসেবে দেখছে সুইডেন

আইসিটি খাতের বাংলাদেশের মানবসম্পদকে অপার সম্ভাবনাময় হিসেবে বিবেচনা করছে সুইডেন। এই মানবসম্পদকে কাজে লাগানোর মাধ্যমে সুইডেন ও বাংলাদেশ উভয়দেশই উপকৃত হতে পারে। সম্প্রতি ঢাকায় সুইডেন দূতাবাসে বাংলাদেশে সুইডেনের রাষ্ট্রদূত আলেকজান্দ্রা বার্গ ফন লিন্ডে এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) সভাপতি রাসেল টি আহমেদের মধ্যে এক বৈঠকে এসব কথা জানানো হয়। সুইডিশ রাষ্ট্রদূত গত কয়েক বছরে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অগ্রগতির প্রশংসা করেন এবং বিদেশে এর সাফল্যের গল্প প্রচারের পরামর্শ দেন। তিনি প্রত্যাশা করেন, তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বেসরকারি খাতের মধ্যে সহযোগিতা উভয় দেশের পারস্পরিক স্বার্থ সুরক্ষিত করবে।

বেসিস সভাপতি রাসেল টি আহমেদ দুই দেশের খাত সংশ্লিষ্টদের মধ্যে একাধিক বৈঠকের কথা তুলে ধরেন এবং বাংলাদেশ কীভাবে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের কেন্দ্রস্থল হিসেবে রূপান্তরিত হয়েছে সেটির অভিজ্ঞতা নিতে বেসিস সফটএক্সপো ২০২২ এ যোগদানের জন্য সুইডিশ প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানান।

সুইডেনের রাষ্ট্রদূত আলেকজান্দ্রা বার্গ ফন লিন্ডে তার দেশে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ব্র্যান্ডিংয়ের কথা জানান। সুইডেনের তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোক্তারা বেসিস সফটএক্সপো ২০২২-এ যোগদানের জন্য আগ্রহী হবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- সুইডেন দূতাবাসের রাজনৈতিক ও বাণিজ্যিক বিষয়ক ফার্স্ট সেক্রেটারি আনা সোয়ানটেসন, বেসিস পরিচালক সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল এবং বেসিস যুগ্ম সচিব (রিসার্চ ফেলো) এনামুল হাফিজ লতিফী। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

বুধবার, ১১ মে ২০২২ , ২৮ বৈশাখ ১৪২৮ ০৮ শাওয়াল ১৪৪৩

আইসিটি খাতে বাংলাদেশের মানবসম্পদকে অপার সম্ভাবনাময় হিসেবে দেখছে সুইডেন

image

আইসিটি খাতের বাংলাদেশের মানবসম্পদকে অপার সম্ভাবনাময় হিসেবে বিবেচনা করছে সুইডেন। এই মানবসম্পদকে কাজে লাগানোর মাধ্যমে সুইডেন ও বাংলাদেশ উভয়দেশই উপকৃত হতে পারে। সম্প্রতি ঢাকায় সুইডেন দূতাবাসে বাংলাদেশে সুইডেনের রাষ্ট্রদূত আলেকজান্দ্রা বার্গ ফন লিন্ডে এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) সভাপতি রাসেল টি আহমেদের মধ্যে এক বৈঠকে এসব কথা জানানো হয়। সুইডিশ রাষ্ট্রদূত গত কয়েক বছরে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের অগ্রগতির প্রশংসা করেন এবং বিদেশে এর সাফল্যের গল্প প্রচারের পরামর্শ দেন। তিনি প্রত্যাশা করেন, তথ্যপ্রযুক্তি খাতে বেসরকারি খাতের মধ্যে সহযোগিতা উভয় দেশের পারস্পরিক স্বার্থ সুরক্ষিত করবে।

বেসিস সভাপতি রাসেল টি আহমেদ দুই দেশের খাত সংশ্লিষ্টদের মধ্যে একাধিক বৈঠকের কথা তুলে ধরেন এবং বাংলাদেশ কীভাবে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের কেন্দ্রস্থল হিসেবে রূপান্তরিত হয়েছে সেটির অভিজ্ঞতা নিতে বেসিস সফটএক্সপো ২০২২ এ যোগদানের জন্য সুইডিশ প্রতিনিধিদের আমন্ত্রণ জানান।

সুইডেনের রাষ্ট্রদূত আলেকজান্দ্রা বার্গ ফন লিন্ডে তার দেশে বাংলাদেশের তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ব্র্যান্ডিংয়ের কথা জানান। সুইডেনের তথ্যপ্রযুক্তি উদ্যোক্তারা বেসিস সফটএক্সপো ২০২২-এ যোগদানের জন্য আগ্রহী হবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- সুইডেন দূতাবাসের রাজনৈতিক ও বাণিজ্যিক বিষয়ক ফার্স্ট সেক্রেটারি আনা সোয়ানটেসন, বেসিস পরিচালক সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল এবং বেসিস যুগ্ম সচিব (রিসার্চ ফেলো) এনামুল হাফিজ লতিফী। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।