শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশিরা ভালো আছেন

শ্রীলঙ্কায় বর্তমানে চরম অস্থিতিশীল পরিস্থিতি বিরাজ করছে। তবে দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তারেক মো. আরিফুল ইসলাম জানিয়েছেন, সেখানে অবস্থানরত বাংলাদেশিরা ভালো ও নিরাপদে আছেন। দ্বীপরাষ্ট্রটির বাংলাদেশ দূতাবাস অধিকাংশ বাংলাদেশি নাগরিকের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছে। এমনকি সেখানে থাকা বাংলাদেশিরা যেকোন প্রয়োজনের বিষয়ে জানাতে পারবেন।

দেশটিতে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সেখানে থাকা বাংলাদেশিদের জরুরি যোগাযোগের জন্য দুটি নম্বর দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। গতকাল এক বার্তায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জরুরি দরকার হলে শ্রীলঙ্কায় থাকা বাংলাদেশিরা ০৭৪২১৫৮৭৫০ ও ০৭১২৪০৬৩১৩ নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন।

শ্রীলঙ্কায় অবস্থানরত বাংলাদেশিদের সংখ্যা নিয়ে রাষ্ট্রদূত জানান, কোভিড মহামারীর সময় অনেক বাংলাদেশি এখান থেকে চলে গেছেন। এখন প্রায় ৩০০-এর মতো আছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাদের একটি বড় অংশ রাজধানী কলম্বোতে থাকেন। আরও কিছু বাঙালি কয়েকটি অঞ্চলে ছড়িয়ে রয়েছে।

সেখানকার বাংলাদেশিদের পেশাগত জীবন সম্পর্কে তারেক মো. আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘এদের কিছু জাতিসংঘ সংস্থা, বহুজাতিক কোম্পানিতে কাজ করছে। এছাড়া, শ্রমিকও কিছু আছে। খুব অল্প সংখ্যক ছাত্র রয়েছে।’

শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোর বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘এখানে বিদ্যুৎ ও তেলের বড় ধরনের সংকট আছে। বর্তমানে তেল পাওয়া যাচ্ছে না এবং প্রতিদিন কয়েক ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে।’ বাংলাদেশ থেকে পাঠানো ওষুধ পৌঁছেছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘শিগগিরই এটি কলম্বোতে পৌঁছাবে বলে আশা করছি।’

উল্লেখ্য, কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক অবস্থার প্রেক্ষাপটে বেশ কিছুদিন ধরে শ্রীলঙ্কায় রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক অস্থিরতা বিরাজ করছে। সোমবার শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে পদত্যাগ করেছেন। রাজাপাকসের পদত্যাগের পর তার সমর্থক ও সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সহিংস সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ইতোমধ্যে শ্রীলঙ্কায় সহিংসতাকারীদের দেখামাত্র গুলি করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে।

বৃহস্পতিবার, ১২ মে ২০২২ , ২৯ বৈশাখ ১৪২৮ ০৯ শাওয়াল ১৪৪৩

শ্রীলঙ্কায় বাংলাদেশিরা ভালো আছেন

শ্রীলঙ্কায় বর্তমানে চরম অস্থিতিশীল পরিস্থিতি বিরাজ করছে। তবে দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তারেক মো. আরিফুল ইসলাম জানিয়েছেন, সেখানে অবস্থানরত বাংলাদেশিরা ভালো ও নিরাপদে আছেন। দ্বীপরাষ্ট্রটির বাংলাদেশ দূতাবাস অধিকাংশ বাংলাদেশি নাগরিকের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছে। এমনকি সেখানে থাকা বাংলাদেশিরা যেকোন প্রয়োজনের বিষয়ে জানাতে পারবেন।

দেশটিতে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে সেখানে থাকা বাংলাদেশিদের জরুরি যোগাযোগের জন্য দুটি নম্বর দিয়েছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। গতকাল এক বার্তায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জরুরি দরকার হলে শ্রীলঙ্কায় থাকা বাংলাদেশিরা ০৭৪২১৫৮৭৫০ ও ০৭১২৪০৬৩১৩ নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন।

শ্রীলঙ্কায় অবস্থানরত বাংলাদেশিদের সংখ্যা নিয়ে রাষ্ট্রদূত জানান, কোভিড মহামারীর সময় অনেক বাংলাদেশি এখান থেকে চলে গেছেন। এখন প্রায় ৩০০-এর মতো আছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। তাদের একটি বড় অংশ রাজধানী কলম্বোতে থাকেন। আরও কিছু বাঙালি কয়েকটি অঞ্চলে ছড়িয়ে রয়েছে।

সেখানকার বাংলাদেশিদের পেশাগত জীবন সম্পর্কে তারেক মো. আরিফুল ইসলাম বলেন, ‘এদের কিছু জাতিসংঘ সংস্থা, বহুজাতিক কোম্পানিতে কাজ করছে। এছাড়া, শ্রমিকও কিছু আছে। খুব অল্প সংখ্যক ছাত্র রয়েছে।’

শ্রীলঙ্কার রাজধানী কলম্বোর বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘এখানে বিদ্যুৎ ও তেলের বড় ধরনের সংকট আছে। বর্তমানে তেল পাওয়া যাচ্ছে না এবং প্রতিদিন কয়েক ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে।’ বাংলাদেশ থেকে পাঠানো ওষুধ পৌঁছেছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘শিগগিরই এটি কলম্বোতে পৌঁছাবে বলে আশা করছি।’

উল্লেখ্য, কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অর্থনৈতিক অবস্থার প্রেক্ষাপটে বেশ কিছুদিন ধরে শ্রীলঙ্কায় রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক অস্থিরতা বিরাজ করছে। সোমবার শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে পদত্যাগ করেছেন। রাজাপাকসের পদত্যাগের পর তার সমর্থক ও সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের মধ্যে সহিংস সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ইতোমধ্যে শ্রীলঙ্কায় সহিংসতাকারীদের দেখামাত্র গুলি করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে।