শেয়ারবাজারে ধারাবাহিক পতন, কমেছে অধিকাংশ শেয়ারের দর

আগের কার্যদিবসের মতো গতকালও পতন হয়েছে শেয়ারবাজারে। এদিন শেয়ারবাজারের সব সূচক কমেছে। সূচকের সঙ্গে অধিকাংশ সিকিউরিটিজের দর এবং টাকার পরিমাণে লেনদেনও কমেছে।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৬.৫২ পয়েন্ট বা ০.৪০ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৫৬৫.৪৭ পয়েন্টে। ডিএসইর অন্য সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১.২৪ পয়েন্ট বা ০.০৮ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩.৭২ পয়েন্ট বা ০.৫৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৪৩২.১৭ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৪০৬.৯১ পয়েন্টে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৮২৩ কোটি ৩৬ লাখ টাকার যা আগের কার্যদিবস থেকে ৩১২ কোটি ৩৪ লাখ টাকা কম। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ১৩৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৮১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৯১টির বা ২৩.৮৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ২৪২টির বা ৬৩.৫২ শতাংশের এবং ৪৮টির বা ১২.৬০ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অন্য শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৯০.১১ পয়েন্ট বা ০.৪৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ২৩৯.৫৩ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৯২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৬৮টির, কমেছে ১৯৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির দর। গতকাল সিএসইতে ২৯ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসইর ব্লক মার্কেটে ৩৩টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির ৩৯ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর এক কোটি ৫৯ লাখ ৬৪ হাজার ৭৪২টি শেয়ার ৭০ বার হাত বদলের মাধ্যমে ৩৮ কোটি ৯১ লাখ ২৮ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ৮ কোটি ৯৩ লাখ ৬১ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংকের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫ কোটি ১১ লাখ ৫ হাজার টাকার তাকাফুল ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪ কোটি ৮০ লাখ ৩০ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৯১টির বা ২৩.৮৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে শাইনপুকুর সিরামিকের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

জানা গেছে, আগের কার্যদিবস শাইনপুকুর সিরামিকের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৩৯.১০ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৪৩ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩.৯০ টাকা বা ৯.৯৭ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে শাইনপুকুর সিরামিক ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এদিন ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে ফু-ওয়াং সিরামিকের ৯.৮৭ শতাংশ, বিডি থাই ফুডের ৯.১৪ শতাংশ, সালভো কেমিক্যালের ৮.৮৪ শতাংশ, ভ্যানগার্ড এএমএল রূপালী ব্যাংক ব্যালেন্স ফান্ডের ৬.৮৪ শতাংশ, জেএমআই হসপিটালের ৬.৬৬ শতাংশ, সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৬.৬৫ শতাংশ, নাহি অ্যালুমিনিয়ামের ৫.৯৯ শতাংশ, লাভেলোর ৫.১০ শতাংশ এবং হামিদ ফেব্রিক্সের শেয়ার দর ৫.০৬ শতাংশ বেড়েছে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২৪২টির বা ৬৩.৫২ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিটের দর কমেছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে পেপার প্রসেসিংয়ের শেয়ারেরপ্রতি বিনিয়োগকারীদের অনাগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

জানা গেছে, আগের কার্যদিবস পেপার প্রসেসিংয়ের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ২২২.১০ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ২১১ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ১১.১০ টাকা বা ৪.৯৯ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে পেপার প্রসেসিং ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এদিন ডিএসইতে টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে মনোস্পুল পেপারের ৪.৯৭ শতাংশ, তমিজউদ্দিন টেক্সটাইলের ৪.৯২ শতাংশ, জেমিনি সি ফুডের ৪.৭৮ শতাংশ, এনআরবিসি ব্যাংকের ৪.৬০ শতাংশ, সাভার রিফ্রাক্টরিজের ৪.২৪ শতাংশ, মেঘনা পেট ইন্ডাস্ট্রিজের ৪.২৪ শতাংশ, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের ৪.১৯ শতাংশ, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্সের ৩.৯৭ শতাংশ এবং এশিয়া ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার দর ৩.৫৫ শতাংশ কমেছে।

শুক্রবার, ১৩ মে ২০২২ , ৩০ বৈশাখ ১৪২৮ ১০ শাওয়াল ১৪৪৩

শেয়ারবাজারে ধারাবাহিক পতন, কমেছে অধিকাংশ শেয়ারের দর

আগের কার্যদিবসের মতো গতকালও পতন হয়েছে শেয়ারবাজারে। এদিন শেয়ারবাজারের সব সূচক কমেছে। সূচকের সঙ্গে অধিকাংশ সিকিউরিটিজের দর এবং টাকার পরিমাণে লেনদেনও কমেছে।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৬.৫২ পয়েন্ট বা ০.৪০ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ৫৬৫.৪৭ পয়েন্টে। ডিএসইর অন্য সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১.২৪ পয়েন্ট বা ০.০৮ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৩.৭২ পয়েন্ট বা ০.৫৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৪৩২.১৭ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৪০৬.৯১ পয়েন্টে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৮২৩ কোটি ৩৬ লাখ টাকার যা আগের কার্যদিবস থেকে ৩১২ কোটি ৩৪ লাখ টাকা কম। আগের কার্যদিবস লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ১৩৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৮১টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৯১টির বা ২৩.৮৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ২৪২টির বা ৬৩.৫২ শতাংশের এবং ৪৮টির বা ১২.৬০ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অন্য শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৯০.১১ পয়েন্ট বা ০.৪৬ শতাংশ কমে দাঁড়িয়েছে ১৯ হাজার ২৩৯.৫৩ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৯২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৬৮টির, কমেছে ১৯৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৯টির দর। গতকাল সিএসইতে ২৯ কোটি ৯৪ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসইর ব্লক মার্কেটে ৩৩টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির ৩৯ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর এক কোটি ৫৯ লাখ ৬৪ হাজার ৭৪২টি শেয়ার ৭০ বার হাত বদলের মাধ্যমে ৩৮ কোটি ৯১ লাখ ২৮ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ৮ কোটি ৯৩ লাখ ৬১ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে ন্যাশনাল ব্যাংকের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৫ কোটি ১১ লাখ ৫ হাজার টাকার তাকাফুল ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪ কোটি ৮০ লাখ ৩০ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৯১টির বা ২৩.৮৮ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিটের দর বেড়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে শাইনপুকুর সিরামিকের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

জানা গেছে, আগের কার্যদিবস শাইনপুকুর সিরামিকের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৩৯.১০ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৪৩ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ৩.৯০ টাকা বা ৯.৯৭ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে শাইনপুকুর সিরামিক ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এদিন ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে ফু-ওয়াং সিরামিকের ৯.৮৭ শতাংশ, বিডি থাই ফুডের ৯.১৪ শতাংশ, সালভো কেমিক্যালের ৮.৮৪ শতাংশ, ভ্যানগার্ড এএমএল রূপালী ব্যাংক ব্যালেন্স ফান্ডের ৬.৮৪ শতাংশ, জেএমআই হসপিটালের ৬.৬৬ শতাংশ, সানলাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৬.৬৫ শতাংশ, নাহি অ্যালুমিনিয়ামের ৫.৯৯ শতাংশ, লাভেলোর ৫.১০ শতাংশ এবং হামিদ ফেব্রিক্সের শেয়ার দর ৫.০৬ শতাংশ বেড়েছে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ২৪২টির বা ৬৩.৫২ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিটের দর কমেছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে পেপার প্রসেসিংয়ের শেয়ারেরপ্রতি বিনিয়োগকারীদের অনাগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

জানা গেছে, আগের কার্যদিবস পেপার প্রসেসিংয়ের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ২২২.১০ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ২১১ টাকায়। অর্থাৎ গতকাল কোম্পানিটির শেয়ার দর ১১.১০ টাকা বা ৪.৯৯ শতাংশ কমেছে। এর মাধ্যমে পেপার প্রসেসিং ডিএসইর টপটেন লুজার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

এদিন ডিএসইতে টপটেন লুজার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে মনোস্পুল পেপারের ৪.৯৭ শতাংশ, তমিজউদ্দিন টেক্সটাইলের ৪.৯২ শতাংশ, জেমিনি সি ফুডের ৪.৭৮ শতাংশ, এনআরবিসি ব্যাংকের ৪.৬০ শতাংশ, সাভার রিফ্রাক্টরিজের ৪.২৪ শতাংশ, মেঘনা পেট ইন্ডাস্ট্রিজের ৪.২৪ শতাংশ, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্সের ৪.১৯ শতাংশ, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্সের ৩.৯৭ শতাংশ এবং এশিয়া ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার দর ৩.৫৫ শতাংশ কমেছে।