সুজেয় শ্যামের সুরে গান গেয়ে উচ্ছ্বসিত কেয়া চৌধুরী

সুজেয় শ্যাম, বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনের বরেণ্য কিংবদন্তি সুরকার, সংগীত পরিচালক। তিনি স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের একজন গুণী সংগীত পরিচালক ও কণ্ঠযোদ্ধা। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের গানে অবদানের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালক বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেছেন বেশ কয়েকবার। গুণী এই সংগীত ব্যক্তিত্ব এখনো নিয়মিত গানের সুর করে যাচ্ছেন। সম্প্রতি এসএম নজরুল ইসলাম নাজমুলের লেখায় ‘আমি তোমার ভালোবাসার পৃথিবীটা ঘুরে দেখতে চাই’-এমন কথার একটি গানে সুর করেছেন তিনি। এই প্রজন্মের সংগীতশিল্পী কেয়া চৌধুরীর গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন। বাংলাদেশ টেলিভিশনের মৌলিক গানের অনুষ্ঠান ‘অন্তরের গান’- এর জন্য এটি করা হয়েছে। এই গান নিয়ে ভীষণ উচ্ছ্বসিত কেয়া চৌধুরী বলেন, ‘আমার স্বপ্নগুলোর মধ্যে অনেক বড় স্বপ্ন ছিল শ্রদ্ধেয় সুজেয় শ্যাম স্যারের সুরে গান গাইবার। সেই স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিলো, এটা সত্যিই আমার জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি।’ কেয়া চৌধুরীর বাড়ি চট্টগ্রামের হালি শহরে। গানে কেয়ার হাতেখড়ি মৃদুল দাসের কাছে। তারপর মিহির লালা ও মোস্তফা কামালের কাছে তালিম নিয়েছেন। বর্তমানে তিনি সুজিত মোস্তফার কাছে গানে তালিম নিচ্ছেন। কেয়ার বাবা জয়দেব দাস কেয়া উচ্চমাধ্যমিকে পড়ার সময় কিডনী’ জটিলতায় অসুস্থ হয়ে মারা যান। তার মা আদরী দাস একটি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানীতে চট্টগ্রামে চাকুরী করছেন। কেয়া’র (জন্ম ২৬ মার্চ ১৯৯৬) স্বামী শুভ চৌধুরী ও একমাত্র সন্তান কর্ণিয়া চৌধুরী স্নেহা (জন্ম ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯)। পেশায় কেয়া একজন ডেন্টিস্ট।

সোমবার, ২০ জুন ২০২২ , ৬ আষাড় ১৪২৮ ২০ জিলকদ ১৪৪৩

সুজেয় শ্যামের সুরে গান গেয়ে উচ্ছ্বসিত কেয়া চৌধুরী

বিনোদন প্রতিবেদক

image

সুজেয় শ্যাম, বাংলাদেশের সংগীতাঙ্গনের বরেণ্য কিংবদন্তি সুরকার, সংগীত পরিচালক। তিনি স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের একজন গুণী সংগীত পরিচালক ও কণ্ঠযোদ্ধা। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের গানে অবদানের জন্য তিনি শ্রেষ্ঠ সংগীত পরিচালক বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেছেন বেশ কয়েকবার। গুণী এই সংগীত ব্যক্তিত্ব এখনো নিয়মিত গানের সুর করে যাচ্ছেন। সম্প্রতি এসএম নজরুল ইসলাম নাজমুলের লেখায় ‘আমি তোমার ভালোবাসার পৃথিবীটা ঘুরে দেখতে চাই’-এমন কথার একটি গানে সুর করেছেন তিনি। এই প্রজন্মের সংগীতশিল্পী কেয়া চৌধুরীর গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন। বাংলাদেশ টেলিভিশনের মৌলিক গানের অনুষ্ঠান ‘অন্তরের গান’- এর জন্য এটি করা হয়েছে। এই গান নিয়ে ভীষণ উচ্ছ্বসিত কেয়া চৌধুরী বলেন, ‘আমার স্বপ্নগুলোর মধ্যে অনেক বড় স্বপ্ন ছিল শ্রদ্ধেয় সুজেয় শ্যাম স্যারের সুরে গান গাইবার। সেই স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিলো, এটা সত্যিই আমার জন্য অনেক বড় প্রাপ্তি।’ কেয়া চৌধুরীর বাড়ি চট্টগ্রামের হালি শহরে। গানে কেয়ার হাতেখড়ি মৃদুল দাসের কাছে। তারপর মিহির লালা ও মোস্তফা কামালের কাছে তালিম নিয়েছেন। বর্তমানে তিনি সুজিত মোস্তফার কাছে গানে তালিম নিচ্ছেন। কেয়ার বাবা জয়দেব দাস কেয়া উচ্চমাধ্যমিকে পড়ার সময় কিডনী’ জটিলতায় অসুস্থ হয়ে মারা যান। তার মা আদরী দাস একটি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানীতে চট্টগ্রামে চাকুরী করছেন। কেয়া’র (জন্ম ২৬ মার্চ ১৯৯৬) স্বামী শুভ চৌধুরী ও একমাত্র সন্তান কর্ণিয়া চৌধুরী স্নেহা (জন্ম ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯)। পেশায় কেয়া একজন ডেন্টিস্ট।