যুক্তরাষ্ট্রে বাজার সম্প্রসারণে টেক্সওয়ার্ল্ডে বিজিএমইএ সদস্যরা

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় পোশাক রপ্তানিকারকদের সমন্বয়ে গঠিত বিজিএমইএ’র একটি প্রতিনিধিদল যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে আরও ব্যবসার সুযোগ অন্বেষণ করতে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য প্রদর্শনী- টেক্সওয়ার্ল্ড ইউএসএ সামার ২০২২-এ অংশগ্রহণ করেছেন। টেক্সওয়ার্ল্ড ইউএসএ-সরবরাহকারী, ক্রেতা, ডিজাইনার, মার্চেন্ডাইজার এবং বিদেশি সোর্সিং পেশাদারদের জন্য অন্যতম বড় এই সোর্সিং ইভেন্ট ১৯-২১ জুলাই নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত হয়।

আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীটিতে ফেব্রিক্সের সব সম্ভার কভার করে বিশাল পরিধিতে পণ্যসামগ্রী প্রদর্শিত হয়। ক্যাজুয়াল তুলা থেকে ফাংশন ফেব্রিক্স এবং অত্যাধুনিক নিট থেকে লেস, বিভিন্ন সিজনের জন্য উপযোগী উদ্ভাবনামূলক, বিভিন্ন গঠনতন্ত্রের এবং বিস্ময়কর বর্ণিল রঙ্গের টেক্সটাইল মেলা দর্শনার্থীদের নজর কাড়ে।

বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিমের নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলটি প্রদর্শনীতে বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের শক্তি, বিশেষ করে নন-কটন ও টেকনিক্যাল টেক্সটাইল থেকে তৈরি ভ্যালু অ্যাডেড পোশাকসহ বৈচিত্র্যময় পণ্য উৎপাদনে শিল্পের ক্রমবর্ধমান গুরুত্ব প্রদানকে তুলে ধরেন।

যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম প্রদর্শনীতে বাংলাদেশি স্টল পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে সুযোগ অন্বেষণে দূতাবাসের পক্ষ থেকে সম্ভাব্য সব সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিম বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে পোশাক রপ্তানিতে বাংলাদেশের অংশ আরও বাড়ানোর যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে। এ ধরনের ট্রেড শো’তে বাংলাদেশি রপ্তানিকারকদের অংশগ্রহণ মার্কিন বাজারের সম্ভাব্য ক্রেতাদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন ও সুযোগগুলোকে কাজে লাগানোর ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।’

সোমবার, ২৫ জুলাই ২০২২ , ১০ শ্রাবণ ১৪২৯ ২৬ জিলহজ ১৪৪৩

যুক্তরাষ্ট্রে বাজার সম্প্রসারণে টেক্সওয়ার্ল্ডে বিজিএমইএ সদস্যরা

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় পোশাক রপ্তানিকারকদের সমন্বয়ে গঠিত বিজিএমইএ’র একটি প্রতিনিধিদল যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে আরও ব্যবসার সুযোগ অন্বেষণ করতে আন্তর্জাতিক বাণিজ্য প্রদর্শনী- টেক্সওয়ার্ল্ড ইউএসএ সামার ২০২২-এ অংশগ্রহণ করেছেন। টেক্সওয়ার্ল্ড ইউএসএ-সরবরাহকারী, ক্রেতা, ডিজাইনার, মার্চেন্ডাইজার এবং বিদেশি সোর্সিং পেশাদারদের জন্য অন্যতম বড় এই সোর্সিং ইভেন্ট ১৯-২১ জুলাই নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত হয়।

আন্তর্জাতিক প্রদর্শনীটিতে ফেব্রিক্সের সব সম্ভার কভার করে বিশাল পরিধিতে পণ্যসামগ্রী প্রদর্শিত হয়। ক্যাজুয়াল তুলা থেকে ফাংশন ফেব্রিক্স এবং অত্যাধুনিক নিট থেকে লেস, বিভিন্ন সিজনের জন্য উপযোগী উদ্ভাবনামূলক, বিভিন্ন গঠনতন্ত্রের এবং বিস্ময়কর বর্ণিল রঙ্গের টেক্সটাইল মেলা দর্শনার্থীদের নজর কাড়ে।

বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিমের নেতৃত্বে প্রতিনিধিদলটি প্রদর্শনীতে বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের শক্তি, বিশেষ করে নন-কটন ও টেকনিক্যাল টেক্সটাইল থেকে তৈরি ভ্যালু অ্যাডেড পোশাকসহ বৈচিত্র্যময় পণ্য উৎপাদনে শিল্পের ক্রমবর্ধমান গুরুত্ব প্রদানকে তুলে ধরেন।

যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম প্রদর্শনীতে বাংলাদেশি স্টল পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে সুযোগ অন্বেষণে দূতাবাসের পক্ষ থেকে সম্ভাব্য সব সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।

বিজিএমইএ’র সহ-সভাপতি শহিদউল্লাহ আজিম বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে পোশাক রপ্তানিতে বাংলাদেশের অংশ আরও বাড়ানোর যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে। এ ধরনের ট্রেড শো’তে বাংলাদেশি রপ্তানিকারকদের অংশগ্রহণ মার্কিন বাজারের সম্ভাব্য ক্রেতাদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন ও সুযোগগুলোকে কাজে লাগানোর ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।’