দিন শেষে সামান্য উত্থান শেয়ারবাজারে

দিনের শুরুতে বড় উত্থানে স্বপ্ন দেখালেও পরে আবার কমতে থাকে। এরপর বড় উত্থান না হলেও সামান্য উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। গতকাল শেয়ারবাজারের সব সূচক বেড়েছে। সূচকের সঙ্গে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর এবং টাকার পরিমাণে লেনদেনও বেড়েছে।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৯.৩৪ পয়েন্ট বা ০.৪৮ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ১১২.২৪ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১.৬৫ পয়েন্ট বা ০.১২ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১২.৮২ পয়েন্ট বা ০.৫৮ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৩৩৩.৯৮ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ১৯০.০২ পয়েন্টে। ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৮৩৮ কোটি ৫ লাখ টাকার যা আগের কার্যদিবস হতে ১৯৮ কোটি ১০ টাকা বেশি। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৬৩৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা।

ডিএসইতে গতকাল ৩৮২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৭৭টির বা ৪৬.৩৪ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ১৭২টির বা ৪৫.০৩ শতাংশের এবং ৩৩টির বা ৮.৬৩ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৫৭.৩৪ পয়েন্ট বা ০.৩২ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৯৮০.২০ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৯৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১১৯টির কমেছে ১৪২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির দর। গতকাল সিএসইতে ২০ কোটি ৯৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসই ব্লক মার্কেটে ৩৫টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির ৫৬ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে ৬টির বড় লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর ৭৭ লাখ ৮৬ হাজার ২৫৫টি শেয়ার ১১৭ বার হাত বদলের মাধ্যমে ৫৬ কোটি ৩৪ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ১১ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৯ কোটি ৯৩ লাখ ২ হাজার টাকার ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৯ কোটি ৫৪ লাখ ৮১ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে আইপিডিসির। এছাড়া আলহাজ্ব টেক্সটাইলের ৮ কোটি ৩১ লাখ ১৫ হাজার টাকার, প্রাইম ইন্স্যুরেন্সের ৪ কোটি ৯৮ লাখ ৪৩ হাজার টাকার এবং পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৪ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৭৭টির বা ৪৬.৩৪ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। এদিন কোম্পানিগুলোর মধ্যে সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

আগের কার্যদিবস লেনদেন শেষে সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৪৭ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৫১.৭০ টাকায়। অর্থাৎ কোম্পানিটির শেয়ার দর ৪.৭০ টাকা বা ১০ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্স ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে কাট্টালি টেক্সটাইলের ৯.৮৬ শতাংশ, ফনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৯.০৯ শতাংশ, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৮.৪৮ শতাংশ, এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ডের ৭.৯৫ শতাংশ, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্সের ৭.২৭ শতাংশ, বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের ৭.২৩ শতাংশ, ঢাকা ইন্স্যুরেন্সের ৭.০১ শতাংশ, ভ্যানগার্ড এএমএল রূপালী ব্যাংক ব্যালেন্সড ফান্ডের ৬.৯৪ শতাংশ এবং ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার দর ৬.৪৬ শতাংশ বেড়েছে।

বুধবার, ২৭ জুলাই ২০২২ , ১২ শ্রাবণ ১৪২৯ ২৮ জিলহজ ১৪৪৩

দিন শেষে সামান্য উত্থান শেয়ারবাজারে

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক

দিনের শুরুতে বড় উত্থানে স্বপ্ন দেখালেও পরে আবার কমতে থাকে। এরপর বড় উত্থান না হলেও সামান্য উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। গতকাল শেয়ারবাজারের সব সূচক বেড়েছে। সূচকের সঙ্গে বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর এবং টাকার পরিমাণে লেনদেনও বেড়েছে।

গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৯.৩৪ পয়েন্ট বা ০.৪৮ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ হাজার ১১২.২৪ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১.৬৫ পয়েন্ট বা ০.১২ শতাংশ এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১২.৮২ পয়েন্ট বা ০.৫৮ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৩৩৩.৯৮ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ১৯০.০২ পয়েন্টে। ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৮৩৮ কোটি ৫ লাখ টাকার যা আগের কার্যদিবস হতে ১৯৮ কোটি ১০ টাকা বেশি। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৬৩৯ কোটি ৯৫ লাখ টাকা।

ডিএসইতে গতকাল ৩৮২টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৭৭টির বা ৪৬.৩৪ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ১৭২টির বা ৪৫.০৩ শতাংশের এবং ৩৩টির বা ৮.৬৩ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৫৭.৩৪ পয়েন্ট বা ০.৩২ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৯৮০.২০ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৯৮টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১১৯টির কমেছে ১৪২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির দর। গতকাল সিএসইতে ২০ কোটি ৯৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসই ব্লক মার্কেটে ৩৫টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির ৫৬ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে ৬টির বড় লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর ৭৭ লাখ ৮৬ হাজার ২৫৫টি শেয়ার ১১৭ বার হাত বদলের মাধ্যমে ৫৬ কোটি ৩৪ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে।

কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ১১ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৯ কোটি ৯৩ লাখ ২ হাজার টাকার ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্সের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ৯ কোটি ৫৪ লাখ ৮১ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে আইপিডিসির। এছাড়া আলহাজ্ব টেক্সটাইলের ৮ কোটি ৩১ লাখ ১৫ হাজার টাকার, প্রাইম ইন্স্যুরেন্সের ৪ কোটি ৯৮ লাখ ৪৩ হাজার টাকার এবং পদ্মা ইসলামী লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৪ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে।

গতকাল ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ১৭৭টির বা ৪৬.৩৪ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। এদিন কোম্পানিগুলোর মধ্যে সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ ছিল সবচেয়ে বেশি।

আগের কার্যদিবস লেনদেন শেষে সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের শেয়ারের ক্লোজিং দর ছিল ৪৭ টাকায়। গতকাল লেনদেন শেষে এর শেয়ারের ক্লোজিং দর দাঁড়ায় ৫১.৭০ টাকায়। অর্থাৎ কোম্পানিটির শেয়ার দর ৪.৭০ টাকা বা ১০ শতাংশ বেড়েছে। এর মাধ্যমে সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্স ডিএসইর টপটেন গেইনার তালিকার শীর্ষে উঠে আসে।

ডিএসইতে টপটেন গেইনার তালিকায় উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে কাট্টালি টেক্সটাইলের ৯.৮৬ শতাংশ, ফনিক্স ফাইন্যান্স ফার্স্ট মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ৯.০৯ শতাংশ, প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ৮.৪৮ শতাংশ, এসইএমএল লেকচার ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট ফান্ডের ৭.৯৫ শতাংশ, গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্সের ৭.২৭ শতাংশ, বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের ৭.২৩ শতাংশ, ঢাকা ইন্স্যুরেন্সের ৭.০১ শতাংশ, ভ্যানগার্ড এএমএল রূপালী ব্যাংক ব্যালেন্সড ফান্ডের ৬.৯৪ শতাংশ এবং ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্সের শেয়ার দর ৬.৪৬ শতাংশ বেড়েছে।