১০ বছর সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার

দুমকিতে ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি মো. মনির আকনকে (৪৫) প্রায় ১১ বছর পর গ্রেপ্তার করেছে দুমকি থানা পুলিশ। আসামি মো. মনির আকন উপজেলার পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মৃত আবুল কাশেম আকনের ছেলে। দুমকি থানার এসআই ইশতিয়াক আল মামুন জানান, ১৩ নভেম্বর বুধবার আনুমানিক দুপুর ১টার সময় পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া থানার রাজারহাট এলাকায় পলাতক থাকা অবস্থায় এএসআই দীপক কুমার তার ফোর্স নিয়ে মো. মনির আকনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হন। তিনি আরও জানান, মো. মনির আকন বিগত প্রায় ১১ বছর ধরে গ্রেপ্তার এড়ানোর জন্য ভিন্ন ভিন্ন নাম ব্যবহার করে দেশের বিভিন্ন এলাকায় পালিয়ে বেড়াচ্ছিল।

তার বিরুদ্ধে ২০১২ সালের ২৮ মার্চ আদালত এসটিসি -২৯/০৮ সূত্র জি আর ৩১২/০৮ এর ১০ বছর সশ্রম কারাদ- এবং ৫০০০ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ১ বছর সশ্রম কারাদ-ের রায় প্রদান করেন। সাজাপ্রাপ্ত উক্ত আসামিকে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দুমকি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। দুমকি থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবদুস সালাম বলেন, ধৃত আসামিকে জেলা জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০২২ , ০১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২০ রবিউস সানি ১৪৪৪

১০ বছর সাজাপ্রাপ্ত আসামি গ্রেপ্তার

প্রতিনিধি, দুমকি (পটুয়াখালী)

দুমকিতে ১০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি মো. মনির আকনকে (৪৫) প্রায় ১১ বছর পর গ্রেপ্তার করেছে দুমকি থানা পুলিশ। আসামি মো. মনির আকন উপজেলার পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের মৃত আবুল কাশেম আকনের ছেলে। দুমকি থানার এসআই ইশতিয়াক আল মামুন জানান, ১৩ নভেম্বর বুধবার আনুমানিক দুপুর ১টার সময় পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া থানার রাজারহাট এলাকায় পলাতক থাকা অবস্থায় এএসআই দীপক কুমার তার ফোর্স নিয়ে মো. মনির আকনকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হন। তিনি আরও জানান, মো. মনির আকন বিগত প্রায় ১১ বছর ধরে গ্রেপ্তার এড়ানোর জন্য ভিন্ন ভিন্ন নাম ব্যবহার করে দেশের বিভিন্ন এলাকায় পালিয়ে বেড়াচ্ছিল।

তার বিরুদ্ধে ২০১২ সালের ২৮ মার্চ আদালত এসটিসি -২৯/০৮ সূত্র জি আর ৩১২/০৮ এর ১০ বছর সশ্রম কারাদ- এবং ৫০০০ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ১ বছর সশ্রম কারাদ-ের রায় প্রদান করেন। সাজাপ্রাপ্ত উক্ত আসামিকে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দুমকি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। দুমকি থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আবদুস সালাম বলেন, ধৃত আসামিকে জেলা জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।