ঢাকায় চলছে স্যানগ ৩৯ ও বিডিনগ ১৬ সম্মেলন

মোহাম্মদ কাওছার উদ্দীন

ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) এর আয়োজনে ঢাকায় চলছে সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক অপারেটর্স গ্রুপের (স্যানগ) ৩৯তম ও বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক অপারেটর্স গ্রুপের (বিডিনগ) ১৬তম সম্মেলন। সম্মেলনের অংশ হিসাবে ইন্টার-কন্টিনেন্টাল ঢাকায় এখন চলছে চার দিনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা। কর্মশালায় ‘বিজিপি এন্ড আইপিভিসিক্স ডেপলয়মেন্ট’, ‘নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি’ এবং ‘নেটওয়ার্ক অটোমেশন’ এই তিনটি ট্র্যাকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। প্রশিক্ষণে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধিত ১৫০জন প্রকৌশলী অংশ নিয়েছেন। কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে থাকছেন এশিয়া প্যাসিফিক নেটওয়ার্ক ইনফরমেশন সেন্টার (এপনিক) থেকে টেরি স্যুইটসার, আব্দুল্লাহ আল নাসের, মোঃ জোবায়ের খান, ওয়ারেন ফিঞ্চ ও শামীম রেজা, এডিএন টেলিকম এর সুমন কুমার সাহা, হ্যারিকেন ইলেকট্রিক এর অনুরাগ ভাটিয়া, ওএম নেটওয়ার্কস এর রুপেশ ব্যাসনেট এবং প্রাইম ব্যাংক লিমিটেডের শায়লা শারমিন। আগামী ১৩ মে প্রশিক্ষণ কর্মশালা শেষ হবে।

এর আগে গত ৯ মে ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ে অনুষ্ঠিত হয় দিনব্যাপী সম্মেলন। প্রধান অতিথি হিসাবে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যামসুন্দর সিকদার, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মাহবুব-উল-আলম, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিলের সমন্বয়ক আব্দুর রহিম খান এবং এপিনিক ডিরেক্টর জেনারেল পল উইলসন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্যানগ চেয়াম?্যান রুপেস শ্রেষ্ঠা, বিডিনগ সভাপতি রাশেদ আমিন বিদ্যুৎ এবং আইএসপিএবি সভাপতি মোঃ এমদাদুল হক। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডিজিটাল এইজ ডিসি’র হেড অব ইন্টারকানেক্ট ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড অপারেশন রাফেল হো। এ সময় অ্যাপ্রিকট চেয়ার ড. ফিলিপ স্মিথ এর হাতে বিশেষ সম্মাননা তুলে দেন স্যানগ চেয়ার গৌরব রাজ উপাধ্যায়া।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার তাঁর বক্তব্যে বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় গত চৌদ্দ বছরে আমরা শুধু ডিজিটাল সংযুক্তির মহাসড়কই তৈরি করিনি, প্রতি এমবিপিএস ব্যান্ডউইথের মূল্য ২৭ হাজার টাকা থেকে এখন ৬০ টাকায় নামিয়ে আনা হয়েছে। এক দেশ এক রেট নির্ধারণের মাধ্যমে ডিজিটাল বৈষম্য দূর করা হয়েছে। তিনি বলেন, ২০০৮ সালে দেশে ৮ লাখ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর স্থলে এখন ইন্টারনেট ব্যবহারকারির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সাড়ে ১২ কোটি। ডিজিটাল নিরাপত্তার জন্য নেটওয়ার্কের নিরাপত্তা অপরিহার্য। এ জন্য একইসঙ্গে আইপিভি ৪ ও আইপিভি ৬ অ্যানাবল রাউটার আমদানিতে বাধ্যাবাধকতা আরোপ করা হয়েছে। ডিজিটাল নিরাপত্তার জন্য আইপিভি ৬ বাস্তবায়নে সরকার বদ্ধপরিকর বলে জানান তিনি। মন্ত্রী বলেন, ২০২৩ সালের মধ্যে এমন কোন ইউনিয়ন থাকবে না যেখানে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সুবিধা থাকবে না।

বৃহস্পতিবার, ১১ মে ২০২৩ , ২৮ বৈশাখ ১৪৩০, ২০ ‍শাওয়াল ১৪৪৪

ঢাকায় চলছে স্যানগ ৩৯ ও বিডিনগ ১৬ সম্মেলন

মোহাম্মদ কাওছার উদ্দীন

image

ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (আইএসপিএবি) এর আয়োজনে ঢাকায় চলছে সাউথ এশিয়ান নেটওয়ার্ক অপারেটর্স গ্রুপের (স্যানগ) ৩৯তম ও বাংলাদেশ নেটওয়ার্ক অপারেটর্স গ্রুপের (বিডিনগ) ১৬তম সম্মেলন। সম্মেলনের অংশ হিসাবে ইন্টার-কন্টিনেন্টাল ঢাকায় এখন চলছে চার দিনের প্রশিক্ষণ কর্মশালা। কর্মশালায় ‘বিজিপি এন্ড আইপিভিসিক্স ডেপলয়মেন্ট’, ‘নেটওয়ার্ক সিকিউরিটি’ এবং ‘নেটওয়ার্ক অটোমেশন’ এই তিনটি ট্র্যাকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে। প্রশিক্ষণে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধিত ১৫০জন প্রকৌশলী অংশ নিয়েছেন। কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে থাকছেন এশিয়া প্যাসিফিক নেটওয়ার্ক ইনফরমেশন সেন্টার (এপনিক) থেকে টেরি স্যুইটসার, আব্দুল্লাহ আল নাসের, মোঃ জোবায়ের খান, ওয়ারেন ফিঞ্চ ও শামীম রেজা, এডিএন টেলিকম এর সুমন কুমার সাহা, হ্যারিকেন ইলেকট্রিক এর অনুরাগ ভাটিয়া, ওএম নেটওয়ার্কস এর রুপেশ ব্যাসনেট এবং প্রাইম ব্যাংক লিমিটেডের শায়লা শারমিন। আগামী ১৩ মে প্রশিক্ষণ কর্মশালা শেষ হবে।

এর আগে গত ৯ মে ঢাকার প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁওয়ে অনুষ্ঠিত হয় দিনব্যাপী সম্মেলন। প্রধান অতিথি হিসাবে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যামসুন্দর সিকদার, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মাহবুব-উল-আলম, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আইসিটি বিজনেস প্রমোশন কাউন্সিলের সমন্বয়ক আব্দুর রহিম খান এবং এপিনিক ডিরেক্টর জেনারেল পল উইলসন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্যানগ চেয়াম?্যান রুপেস শ্রেষ্ঠা, বিডিনগ সভাপতি রাশেদ আমিন বিদ্যুৎ এবং আইএসপিএবি সভাপতি মোঃ এমদাদুল হক। অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডিজিটাল এইজ ডিসি’র হেড অব ইন্টারকানেক্ট ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড অপারেশন রাফেল হো। এ সময় অ্যাপ্রিকট চেয়ার ড. ফিলিপ স্মিথ এর হাতে বিশেষ সম্মাননা তুলে দেন স্যানগ চেয়ার গৌরব রাজ উপাধ্যায়া।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার তাঁর বক্তব্যে বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির ধারাবাহিকতায় গত চৌদ্দ বছরে আমরা শুধু ডিজিটাল সংযুক্তির মহাসড়কই তৈরি করিনি, প্রতি এমবিপিএস ব্যান্ডউইথের মূল্য ২৭ হাজার টাকা থেকে এখন ৬০ টাকায় নামিয়ে আনা হয়েছে। এক দেশ এক রেট নির্ধারণের মাধ্যমে ডিজিটাল বৈষম্য দূর করা হয়েছে। তিনি বলেন, ২০০৮ সালে দেশে ৮ লাখ ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর স্থলে এখন ইন্টারনেট ব্যবহারকারির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সাড়ে ১২ কোটি। ডিজিটাল নিরাপত্তার জন্য নেটওয়ার্কের নিরাপত্তা অপরিহার্য। এ জন্য একইসঙ্গে আইপিভি ৪ ও আইপিভি ৬ অ্যানাবল রাউটার আমদানিতে বাধ্যাবাধকতা আরোপ করা হয়েছে। ডিজিটাল নিরাপত্তার জন্য আইপিভি ৬ বাস্তবায়নে সরকার বদ্ধপরিকর বলে জানান তিনি। মন্ত্রী বলেন, ২০২৩ সালের মধ্যে এমন কোন ইউনিয়ন থাকবে না যেখানে দ্রুতগতির ইন্টারনেট সুবিধা থাকবে না।