পীরগঞ্জ পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ

রংপুরের পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র এএসএম তাজিমুল ইসলামের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যাবহারসহ নানা অনিয়মের প্রতিবাদে পীরগঞ্জ পৌরসভার সংখ্যাগরিষ্ঠ কাউন্সিলরা সংবাদ করেছেন। গত রোববার সম্মেলনে আট কাউন্সিলরের স্বক্ষরিত লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পৌরসভার সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর আনজুয়ারা খাতুন। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই পীরগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলররা মেয়র কর্তৃক মারাত্মকভাবে উপেক্ষিত। সময়মতো পৌরসভার মাসিক সভা না করা, করলেও সভার রেজুলেশন কপি সরবরাহ না করা, বার্ষিক আয় ব্যয়ের হিসেব না দেওয়াসহ নানাভাবে মেয়র স্বেচ্ছাচারী ভূমিকা পালন করে তার নিজস্ব লোক দিয়ে পৌরসভার কার্যক্রম পরিচালনা করছেন । তারা বলেন, মেয়রের দুর্নীতির প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেও কোন ফল নেই। তাই বাধ্য হয়ে গত ২২ মার্চ সংখ্যাগরিষ্ঠ কাউন্সিলর পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র তাজিমুল ইসলামের বিরুদ্ধে স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন/২০০৯ এর ৩৮(২) ধারা মতে অনাস্থা প্রস্তাবসহ উপ-পরিচালক, স্থানীয় সরকার-রংপুর বরাবর আবেদনপত্র দাখিল করেন এবং অনুলিপি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে প্রেরণ করে। এতে তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে নানাভাবে তাদের হেনস্থা করছেন। কাউন্সিলররা লিখিত অভিযোগে আরো জানান, মেয়র বিধি বর্হিভূতভাবে একই স্মারকে একই তারিখে প্রতিস্থাপন দেখিয়ে নুতন প্যানেল মেয়র কমিটি গঠন করে এবং জনগণের কাছে তাদের হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে তাদের বাদ দিয়েই পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সরকারি ভিজিএফ কর্মসূচির চাল বিতরণ করেন। এতে তারা জনগণের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হয় এবং চরমভাবে তাদের সম্মানহানী ঘটে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পৌর কাউন্সিলর কবিরুল ইসলাম,মশিউর রহমান পারভেজ,আরমান আলী তালুকদার, আশরাফুল ইসলাম,আনজুয়ার খাতুন ও শাবানা বেগম। এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়রের সাথে তার মোবাইল ফোনে বেশ কয়েকবার ফোন করার পরেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

বুধবার, ১৭ মে ২০২৩ , ০৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৪

পীরগঞ্জ পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে নানা অনিয়মের অভিযোগ

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, রংপুর

রংপুরের পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র এএসএম তাজিমুল ইসলামের বিরুদ্ধে ক্ষমতার অপব্যাবহারসহ নানা অনিয়মের প্রতিবাদে পীরগঞ্জ পৌরসভার সংখ্যাগরিষ্ঠ কাউন্সিলরা সংবাদ করেছেন। গত রোববার সম্মেলনে আট কাউন্সিলরের স্বক্ষরিত লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন পৌরসভার সংরক্ষিত ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর আনজুয়ারা খাতুন। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকেই পীরগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলররা মেয়র কর্তৃক মারাত্মকভাবে উপেক্ষিত। সময়মতো পৌরসভার মাসিক সভা না করা, করলেও সভার রেজুলেশন কপি সরবরাহ না করা, বার্ষিক আয় ব্যয়ের হিসেব না দেওয়াসহ নানাভাবে মেয়র স্বেচ্ছাচারী ভূমিকা পালন করে তার নিজস্ব লোক দিয়ে পৌরসভার কার্যক্রম পরিচালনা করছেন । তারা বলেন, মেয়রের দুর্নীতির প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেও কোন ফল নেই। তাই বাধ্য হয়ে গত ২২ মার্চ সংখ্যাগরিষ্ঠ কাউন্সিলর পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়র তাজিমুল ইসলামের বিরুদ্ধে স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) আইন/২০০৯ এর ৩৮(২) ধারা মতে অনাস্থা প্রস্তাবসহ উপ-পরিচালক, স্থানীয় সরকার-রংপুর বরাবর আবেদনপত্র দাখিল করেন এবং অনুলিপি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে প্রেরণ করে। এতে তিনি ক্ষুব্ধ হয়ে নানাভাবে তাদের হেনস্থা করছেন। কাউন্সিলররা লিখিত অভিযোগে আরো জানান, মেয়র বিধি বর্হিভূতভাবে একই স্মারকে একই তারিখে প্রতিস্থাপন দেখিয়ে নুতন প্যানেল মেয়র কমিটি গঠন করে এবং জনগণের কাছে তাদের হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে তাদের বাদ দিয়েই পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে সরকারি ভিজিএফ কর্মসূচির চাল বিতরণ করেন। এতে তারা জনগণের কাছে প্রশ্নবিদ্ধ হয় এবং চরমভাবে তাদের সম্মানহানী ঘটে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পৌর কাউন্সিলর কবিরুল ইসলাম,মশিউর রহমান পারভেজ,আরমান আলী তালুকদার, আশরাফুল ইসলাম,আনজুয়ার খাতুন ও শাবানা বেগম। এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ পৌরসভার মেয়রের সাথে তার মোবাইল ফোনে বেশ কয়েকবার ফোন করার পরেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।