তিন হাজার ফরম বিক্রি, আওয়ামী লীগের আয় ছাড়ালো ১৫ কোটি টাকা

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রির তৃতীয় দিনে গতকাল ৭৩৩টি ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। এ নিয়ে গত তিন দিনে ৩ হাজার ১৯টি ফরম বিক্রি করল দলটি। ফরম বিক্রি থেকে দলটির আয় হয়েছে ১৫ কোটি ৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া জানান, তৃতীয় দিনে বিক্রীত ফরমের মধ্যে ৭০৯টি ফরম সশরীরে এবং ২৪টি ফরম সংগ্রহ করা হয় অনলাইনে।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গত শনিবার মনোনয়ন ফরম বিক্রি কার্যক্রম উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এবারই প্রথমবারের মতো অনলাইনে ফরম সংগ্রহ ও জমা দেয়ার ব্যবস্থা রেখেছে আওয়ামী লীগ।

এদিন ঢাকা বিভাগের আসনগুলোর জন্য ১৬৬টি, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৬৫টি, সিলেট বিভাগে ৩৩টি, ময়মনসিংহ বিভাগ ৫৮টি, বরিশাল বিভাগে ৭৬টি, খুলনা বিভাগে ৯০টি, রংপর বিভাগে ৬২ ও রাজশাহী বিভাগে ৫৯টি ফরম বিক্রি হয়।

গত শনিবার প্রথম দিন ১ হাজার ৭৪টি এবং রোববার দ্বিতীয় দিন ১ হাজার ২১২টি ফরম বিক্রি হয়।

ফরম বিক্রির এই সংখ্যাটি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তুলনায় এক হাজার কম। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের সেই নির্বাচনের আগে ৩ দিনে ৪ হাজার একশ’রও বেশি ফরম বিক্রি করেছিল আওয়ামী লীগ। তখন দলের আয় হয় ১২ কোটি ৩২ লাখ টাকার বেশি।

একাদশ সংসদ নির্বাচনে প্রতিটি ফরমের দাম ছিল ৩০ হাজার টাকা। এবার তা বাড়িয়ে ৫০ হাজার টাকা করা হয়েছে।

আজ বিকেল পর্যন্ত ফরম বিক্রি ও জমা নেয়ার এই কার্যক্রম চলবে।

আগামী ৭ জানুয়ারি ভোট ধরে যে তফসিল ঘোষণা হয়েছে, তাতে নির্বাচন কমিশনে মনোনয়নপত্র জমা দিতে হবে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে। তার আগেই প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত করবে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড।

গত তিনটি নির্বাচনের মতো এবারও আওয়ামী লীগ জোটবদ্ধ হয়ে লড়াই করবে বলে নির্বাচন কমিশনকে জানানো হয়েছে। তবে দলটি তিনশ’ আসনেই ফরম বিক্রি করছে দল। আসন সমঝোতার বিষয়টি শরিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে পরে ঠিক করবে ক্ষমতাসীন দল।

মঙ্গলবার, ২১ নভেম্বর ২০২৩ , ৬ অগ্রায়ন ১৪৩০, ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৫

তিন হাজার ফরম বিক্রি, আওয়ামী লীগের আয় ছাড়ালো ১৫ কোটি টাকা

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের জন্য দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রির তৃতীয় দিনে গতকাল ৭৩৩টি ফরম বিক্রি করেছে আওয়ামী লীগ। এ নিয়ে গত তিন দিনে ৩ হাজার ১৯টি ফরম বিক্রি করল দলটি। ফরম বিক্রি থেকে দলটির আয় হয়েছে ১৫ কোটি ৯ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া জানান, তৃতীয় দিনে বিক্রীত ফরমের মধ্যে ৭০৯টি ফরম সশরীরে এবং ২৪টি ফরম সংগ্রহ করা হয় অনলাইনে।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গত শনিবার মনোনয়ন ফরম বিক্রি কার্যক্রম উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এবারই প্রথমবারের মতো অনলাইনে ফরম সংগ্রহ ও জমা দেয়ার ব্যবস্থা রেখেছে আওয়ামী লীগ।

এদিন ঢাকা বিভাগের আসনগুলোর জন্য ১৬৬টি, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৬৫টি, সিলেট বিভাগে ৩৩টি, ময়মনসিংহ বিভাগ ৫৮টি, বরিশাল বিভাগে ৭৬টি, খুলনা বিভাগে ৯০টি, রংপর বিভাগে ৬২ ও রাজশাহী বিভাগে ৫৯টি ফরম বিক্রি হয়।

গত শনিবার প্রথম দিন ১ হাজার ৭৪টি এবং রোববার দ্বিতীয় দিন ১ হাজার ২১২টি ফরম বিক্রি হয়।

ফরম বিক্রির এই সংখ্যাটি একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তুলনায় এক হাজার কম। ২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বরের সেই নির্বাচনের আগে ৩ দিনে ৪ হাজার একশ’রও বেশি ফরম বিক্রি করেছিল আওয়ামী লীগ। তখন দলের আয় হয় ১২ কোটি ৩২ লাখ টাকার বেশি।

একাদশ সংসদ নির্বাচনে প্রতিটি ফরমের দাম ছিল ৩০ হাজার টাকা। এবার তা বাড়িয়ে ৫০ হাজার টাকা করা হয়েছে।

আজ বিকেল পর্যন্ত ফরম বিক্রি ও জমা নেয়ার এই কার্যক্রম চলবে।

আগামী ৭ জানুয়ারি ভোট ধরে যে তফসিল ঘোষণা হয়েছে, তাতে নির্বাচন কমিশনে মনোনয়নপত্র জমা দিতে হবে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে। তার আগেই প্রার্থী মনোনয়ন চূড়ান্ত করবে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড।

গত তিনটি নির্বাচনের মতো এবারও আওয়ামী লীগ জোটবদ্ধ হয়ে লড়াই করবে বলে নির্বাচন কমিশনকে জানানো হয়েছে। তবে দলটি তিনশ’ আসনেই ফরম বিক্রি করছে দল। আসন সমঝোতার বিষয়টি শরিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনা করে পরে ঠিক করবে ক্ষমতাসীন দল।