অণুজীবের কথা

অণুজীব হলো ক্ষুদ্র জীব, যা সাধারণত খালি চোখে দেখা যায় না। ব্যাকটেরিয়া, ছত্রাক, ভাইরাস, শৈবাল, প্রটোজোয়া ইত্যাদি অনুজীবের অন্তর্ভুক্ত। প্রতিবছর ১৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ব অণুজীববিজ্ঞান দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

বিজ্ঞানের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যেমন- ঔষধ, কৃষি, পরিবেশ, স্বাস্থ্য, খাদ্য ইত্যাদিতে অনুজীববিজ্ঞানের ভূমিকা রয়েছে। অণুজীব থেকে নিত্যনতুন ভ্যাক্সিন, এন্টিবায়োটিক, প্রোটিন, ভিটামিন এবং এনজাইম তৈরি হচ্ছে। সংক্রামক রোগের প্রতিষেধক প্রস্তুত করা বর্তমান সময়ের পৃথিবীর জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ, যা অনুজীববিজ্ঞানের গবেষণার দ্বারা সম্ভব হচ্ছে।

অণুজীবকে সঠিকভাবে কাজে লাগিয়ে আমরা পরিবেশ দূষণ রোধ করতে পারি যা পরিবেশবান্ধব ও সাশ্রয়ী। খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে (খরা ও লবণ সহিষ্ণু) বীজ ও গাছ উৎপাদনে অনুজীব ব্যবহৃত হচ্ছে। আর এভাবেই সরকারের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এবং অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে অণুজীব বিজ্ঞানের ব্যাপক গবেষণা।

তাই উন্নত বিশ্বের দেশগুলোর পাশাপাশি বাংলাদেশকেও এগিয়ে আসতে হবে। সর্বোপরি অণুজীবের গবেষণা হতে হবে মানবকল্যাণকে কেন্দ্র করে।

শোয়েব আহম্মেদ

রবিবার, ০৯ জুন ২০২৪ , ২৯ জৈষ্ঠ্য ১৪৩১ ৩০ জিলক্বদ ১৪৪৫

অণুজীবের কথা

অণুজীব হলো ক্ষুদ্র জীব, যা সাধারণত খালি চোখে দেখা যায় না। ব্যাকটেরিয়া, ছত্রাক, ভাইরাস, শৈবাল, প্রটোজোয়া ইত্যাদি অনুজীবের অন্তর্ভুক্ত। প্রতিবছর ১৭ সেপ্টেম্বর বিশ্ব অণুজীববিজ্ঞান দিবস হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

বিজ্ঞানের বিভিন্ন ক্ষেত্রে যেমন- ঔষধ, কৃষি, পরিবেশ, স্বাস্থ্য, খাদ্য ইত্যাদিতে অনুজীববিজ্ঞানের ভূমিকা রয়েছে। অণুজীব থেকে নিত্যনতুন ভ্যাক্সিন, এন্টিবায়োটিক, প্রোটিন, ভিটামিন এবং এনজাইম তৈরি হচ্ছে। সংক্রামক রোগের প্রতিষেধক প্রস্তুত করা বর্তমান সময়ের পৃথিবীর জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ, যা অনুজীববিজ্ঞানের গবেষণার দ্বারা সম্ভব হচ্ছে।

অণুজীবকে সঠিকভাবে কাজে লাগিয়ে আমরা পরিবেশ দূষণ রোধ করতে পারি যা পরিবেশবান্ধব ও সাশ্রয়ী। খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে (খরা ও লবণ সহিষ্ণু) বীজ ও গাছ উৎপাদনে অনুজীব ব্যবহৃত হচ্ছে। আর এভাবেই সরকারের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন এবং অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে অণুজীব বিজ্ঞানের ব্যাপক গবেষণা।

তাই উন্নত বিশ্বের দেশগুলোর পাশাপাশি বাংলাদেশকেও এগিয়ে আসতে হবে। সর্বোপরি অণুজীবের গবেষণা হতে হবে মানবকল্যাণকে কেন্দ্র করে।

শোয়েব আহম্মেদ