নওগাঁয় পুলিশ-পরিবহন শ্রমিক সংঘর্ষ : বাস চলাচল বন্ধ

নওগাঁয় পরিবহন শ্রমিককে আটক করাকে কেন্দ্র করে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষ, ধাওয়া পাল্টাধাওয়া ও গাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। গত বুধবার সন্ধ্যায় এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় ৫ বাস শ্রমিক আহত হয়েছেন। ঘটনার পর শ্রমিকরা আন্তঃরুটের সব বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। বর্তমানে শহরের বালুডাঙ্গা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এদিকে হঠাৎ বাস বন্ধ হওয়ায় চরম বিরম্বনায় পড়েছেন বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা।

শ্রমিকরা জানান, দুপুরে শহরের মশরপুর এলাকায় একটি বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী আহত হন। এ ঘটনায় বাসের চালক সোলেমানকে আটক করতে বাস টার্মিনাল এলাকায় আসে পুলিশ। এ সময় পুলিশ ও শ্রমিকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নওগাঁ সদর থানার পরিদর্শক রাজিবুল ইসলাম বলেন, বালুডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় একজন আসামিকে আটক করে নেয়ার পথে শ্রমিকেরা তাকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন। তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট ছোড়েন। এতে আমি ও একজন কনস্টেবল আহত হয়েছি। এখন টার্মিনাল এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শুক্রবার, ১৯ নভেম্বর ২০২১ , ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৮ ১৩ রবিউস সানি ১৪৪৩

নওগাঁয় পুলিশ-পরিবহন শ্রমিক সংঘর্ষ : বাস চলাচল বন্ধ

নওগাঁয় পরিবহন শ্রমিককে আটক করাকে কেন্দ্র করে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষ, ধাওয়া পাল্টাধাওয়া ও গাড়ি ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। গত বুধবার সন্ধ্যায় এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় ৫ বাস শ্রমিক আহত হয়েছেন। ঘটনার পর শ্রমিকরা আন্তঃরুটের সব বাস চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। বর্তমানে শহরের বালুডাঙ্গা কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এদিকে হঠাৎ বাস বন্ধ হওয়ায় চরম বিরম্বনায় পড়েছেন বিভিন্ন রুটের যাত্রীরা।

শ্রমিকরা জানান, দুপুরে শহরের মশরপুর এলাকায় একটি বাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী আহত হন। এ ঘটনায় বাসের চালক সোলেমানকে আটক করতে বাস টার্মিনাল এলাকায় আসে পুলিশ। এ সময় পুলিশ ও শ্রমিকদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নওগাঁ সদর থানার পরিদর্শক রাজিবুল ইসলাম বলেন, বালুডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড এলাকায় একজন আসামিকে আটক করে নেয়ার পথে শ্রমিকেরা তাকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন। তারা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট ছোড়েন। এতে আমি ও একজন কনস্টেবল আহত হয়েছি। এখন টার্মিনাল এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।